টপ পোষ্ট

বিয়ের পরে কি প্রেম হয়?

0

বিয়ের পরে কি প্রেম হয়?বিবাহের অরুণোদয় হইল একখানি ফটোগ্রাফের আভাসে। পড়া মুখস্থ করিতেছিলাম। একজন ঠাট্টার সম্পর্কের আত্মীয়া আমার টেবিলের উপরে ছবিখানি রাখিয়া বলিলেন, ‘এইবার সত্যিকার পড়া পড়ো—একেবারে ঘাড়মোড় ভাঙিয়া।’ (হৈমন্তী: রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর)
রবীন্দ্রনাথের গল্পের মতো এ যুগে কেবল ফটোগ্রাফ দেখে আর সম্বন্ধ করে বিয়ে? পরস্পরকে কিছুমাত্র না জেনে-শুনে? প্রায় অসম্ভবই বলতে হবে। এমনকি পারিবারিক সম্বন্ধ করেও যেসব বিয়ে হয় এখনকার দিনে, তাতেও বিয়ের আগে পাত্র-পাত্রীকে চেনাজানার সুযোগ দেওয়া হয়। কথাবার্তা কিছু হয়, জানাশোনা হয়। দেখা-সাক্ষাৎও হয়। কিন্তু প্রেম-পরিচয়ের বিয়েতে দুজনের মাঝে যে রসায়ন থাকে, সম্বন্ধ করে বিয়েতে সেই রসায়ন কি তৈরি হওয়ার সুযোগ আছে? নাকি প্রাত্যহিকতার কারণে এই একসঙ্গে থাকা, ভালোবাসাবাসি একটা নিতান্ত দৈনন্দিন অভ্যাসের মতো গড়ে ওঠে? বিয়ের পরে দুজনের মধ্যে সহাবস্থান বা সহমর্মিতা শুধু নয়, পুরোদস্তুর প্রেমও কি হয়ে উঠতে পারে?
বয়স্ক ব্যক্তিরা এ ক্ষেত্রে নিজেদের উদাহরণই টানবেন। আমাদের মুরব্বি স্থানীয়দের অনেকের বাসর রাতেই হয়তো প্রথম স্বামী-স্ত্রীর সাক্ষাৎ হয়েছিল। তাতে প্রেম-ভালোবাসার কমতি পড়েছিল কি কিছু? কিন্তু তাঁদের বুঝতে হবে এই সময়টা সেই সময় নয়। অচেনা-অজানা কাউকে চট করে ভালোবেসে ফেলা, প্রেমে পড়া আজকালকার দিনে একটু বিদঘুটেই শোনায়। কিন্তু তাই বলে কি সম্বন্ধ করে বিয়ে হচ্ছে না? আর অ্যারেঞ্জড ম্যারেজেও কি স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রেমময় সম্পর্ক গড়ে উঠছে না?
হ্যাঁ, হতেই পারে। হয়ও। বিয়ের আগে কেউ কাউকে জানতেন না, অথচ বিয়ের পর এখন একে অপরকে রেখে এক মুহূর্তও থাকতে পারেন না—এমন দম্পতি অনেক দেখেছি। সম্বন্ধের বিয়েতেও প্রেমিক-প্রেমিকার মতোই স্বামী-স্ত্রীরা মান-অভিমান, সন্দেহ-দোলাচল, অনিশ্চয়তা-উচ্ছ্বাস এমন বিচিত্র অনুভূতির মধ্য দিয়ে যান ও সম্পর্কটাকে অবশেষে গড়ে তোলেন।
বর্তমান কালের নিউক্লিয়ার পরিবারে তা ছাড়া সম্ভবও নয়। টোনাটুনির সংসারে প্রেম না থাকলে কি চলে? তবে বিয়ের পরের প্রেমটা ঝোড়ো হাওয়ার মতো উথালপাথাল নয়, বরং হালকা হাওয়ার মতো। ধীরে ধীরে হৃদয়কে ছুঁয়ে যায়। এর মধ্যে পাগলামির ব্যাপারটা হয়তো থাকে না, কিন্তু একটা স্থির-ধীর সৌন্দর্য থাকে, থাকে ‘হয়ে ওঠা’র গল্প।
রবীন্দ্রনাথের হৈমন্তী দিয়ে শুরু করেছিলাম, সেটা দিয়েই শেষ করি। ‘দানের মন্ত্রে স্ত্রীকে যেটুকু পাওয়া যায় তাহাতে সংসার চলে, কিন্তু পনেরো আনা বাকি থাকিয়া যায়।’ কথাটা হয়তো ততখানি ঠিক নয়। সংসার চালানো ছাড়াও স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বন্ধুর মতো, সহচরের মতো, প্রেমিক-প্রেমিকার মতো সম্পর্ক গড়ে ওঠা এখন আর বিচিত্র নয়। অসম্ভব নয় বিয়ের পরেও প্রেমে পড়া, প্রেমে মশগুল হওয়া। ষোলো আনা ভালোবাসাবাসি হয়তো বিয়ের পরেও আরম্ভ করা যায়।

শেয়ার করুণ

আপনার মন্তব্য দিন

[X]