টপ পোষ্ট

আপনাকে দেখেই কি বাচ্চারা কেঁদে ওঠে? কারণ জানলে আপনি কাঁদবেন !!

0

কেন অনেককে দেখে শিশুদের চেহারা এ রকম হয়ে যায়। কেন আপনাকে দেখে একটি শিশু এভাবে কেঁদে উঠবে? ভেবে দেখেছেন, আপনার মধ্যে এমন কী রয়েছে, যা দেখে একরত্তি শিশু ঘাবড়ে যাবে?

উত্তর শুনলে আপনারও মনে হবে হাত-পা ছুড়ে কাঁদতে। আপনি তো শিশুটির দিকে তাকিয়ে হাসছেন, গাইছেন, তাকে কোলে নিতে চাইছেন।কিন্তু শিশুটি? কাঁদতে-কাঁদতে পালানোর পথ খুঁজে পাচ্ছে না।

 

সম্প্রতি ‘‘ফ্রন্টিয়ার্স ইন সাইকোলজি’’ পত্রিকায় একটি গবেষণা প্রকাশিত হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, একটি শিশু যখন কোনও কারণ ছা়ড়াই কাউকে দেখে কাঁদতে শুরু করে, তখন বুঝে নিতে হবে যে, গোলমালটা শিশুর নয়, দ্বিতীয়জনের।

কী সেই গোলমাল? শিশুটি মনে করে, আপনি কুৎসিত, কদাকার দেখতে। সে আপনাকে পছন্দ করছে না।এর পরেও আর কিছু বলবেন? না, কাঁদবেন?

 

আরো পড়ুন…

নেইমারের খেলা দেখে জ্ঞান হারালেন তাঁর বোন!

 

সেদিনের রূদ্ধশ্বাস ম্যাচ। একের পর এক ঢেউয়ের মতো আক্রমণ। এর পরেই গোলের দেখা পাওয়া গেলনা ৯০ মিনিটেও। শেষ মুহূর্তে সমস্ত উৎকণ্ঠা উড়িয়ে জোড়া গোল। এমন রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে ভাইয়ের গোল দেখেই মূর্চ্ছা গেলেন রাফায়েলা বেকরান। এর পরে তাঁকে ক্রেসটোভস্কি স্টেডিয়ামের চিকিৎসার জন্য বিশেষ ব্যবস্থাও নেওয়া হল।

রাফায়েলা বেক্রান হলেন নেইমারের বড় বোন। বিশ্বের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকার বোনের বেশ ঘনিষ্ঠ। দু’জনের সম্পর্ক বেশ ভাল। বোনের ছবি নিজের ডান হাতে ট্যাটুও করেছেন তিনি। মাঠে নেইমার সারাক্ষণই দাপালেন। কুটিনহোর গোলের পরে দ্বিতীয় গোল করেন নেইমারই।

ম্যাচের পরে মাঠে কান্নায় ভেঙে পড়তে দেখা যায় ব্রাজিলীয় তারকাকে। মাঝে কোস্টারিকান ডিফেন্ডার জিয়ানকার্লো গঞ্জালেজের বিরুদ্ধে নেইমারকে করা ফাউলের আবেদনও বাতিল হয়ে যায়। ভিএআর সিস্টেমে নেইমারের ‘প্লে অ্যাক্টিং’ ধরা পরে যায়।

সবমিলিয়ে চাপ বাড়ছিল নেইমারের উপরে। ম্যাচের পরে তাই আবেগের বিস্ফোরণ। পরে নিজের কান্নার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে নেইমার বলেন, অনেকেই জানে না, এখানে পৌঁছতে আমাকে কতটা কষ্ট সহ্য করতে হয়েছে। এই কান্নাটা ছিল আনন্দের। আমার জীবনে কোনও কিছুই সহজে আসেনি। স্বপ্ন এখনও দেখে চলেছি।

নেইমারের গোল দেখার আগে মাঠে ভাইয়ের খেলা দেখে তার আগেই মূর্চ্ছা গিয়েছেন তাঁর বোন রাফায়েলা বেকরান।

শেয়ার করুণ

আপনার মন্তব্য দিন